Wn/bn/বাংলাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিল ঘোষিত

From Wikimedia Incubator
< Wn‎ | bn
Wn > bn > বাংলাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিল ঘোষিত
নিরীক্ষণের জন্য অপেক্ষমান!  এই নিবন্ধটি ১৩ মে, ২০২৪ অনুযায়ী নিরীক্ষণ বা পর্যালোচনা করা হয়নি। এখানে প্রদর্শিত তথ্যগুলোর পুনঃমূল্যায়ন করুন। (আরও জানুনশোধন)

বুধবার, ১৯ জুলাই ২০২৩

এই প্রতিবেদনটি শুনুন (1 মিনিট)
অডিও উইকিসংবাদ আইকন
উক্ত অডিও ফাইলটি এই নিবন্ধটির ১৯ জুলাই ২০২৩ (2023-07-19) তারিখের একটি সংশোধন থেকে তৈরি করা হয়েছে এবং পরবর্তী সম্পাদনাগুলিকে প্রতিফলিত করে না।
বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, ২০১৩ ভিয়েনা শহরে
বাংলাদেশ
বাংলাদেশ
সম্পর্কিত শিরোনামগুলো
অংশগ্রহণ
বাংলাদেশ
বাংলাদেশ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিল হয়েছে। এই কারণে আগামী রবিবার হতে যথারীতি শ্রেণী কার্যক্রম চলবে। বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এই সিদ্ধান্ত ১৯ জুলাইয়ে এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন। ১৯ জুলাই দুপুরে টানা নবম দিনের মতো ঢাকার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আন্দোলনরত শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষক সংগঠনের নেতাদের সাথে এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী।

মন্ত্রী জানান, এই ছুটি আগামী শীতের ছুটিতে সমন্বিত করা হবে এবং নতুন শিক্ষাক্রমে ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির পাঠদান ও মূল্যায়ন শেষ করতে হবে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে। এছাড়া জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বিদ্যালয়গুলোতে বার্ষিক পরীক্ষা শেষ করতে হবে এই একই সময়ের মধ্যেই।

শিক্ষাপঞ্জি অনুযায়ী, ২০ জুলাই থেকে আগামী ২ আগস্ট পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গ্রীষ্মকালীন ছুটি ছিল। সেটি এখন আর হচ্ছে না। আগামী রোববার থেকে যথারীতি ক্লাস চলবে।


উৎস[edit | edit source]

  • "শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিল" — প্রথম আলো, ১৯ জুলাই ২০২৩
  • শাকির আহমেদ। "মাধ্যমিকে গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিল" — সময় টিভি, ১৯ জুলাই ২০২৩


শেয়ার করুন!

ইমেইল করুন এই খবরকে

ফেসবুকে শেয়ার করুন

টেলিগ্রামে শেয়ার করুন

লিঙ্কডইনে শেয়ার করুন

টুইটারে শেয়ার করুন

শেয়ার করুন!

ইমেইল করুন এই খবরকে

ফেসবুকে শেয়ার করুন

টেলিগ্রামে শেয়ার করুন

লিঙ্কডইনে শেয়ার করুন

টুইটারে শেয়ার করুন