Wn/bn/বাংলাদেশের শীর্ষ যুদ্ধাপরাধীর মৃত্যু

From Wikimedia Incubator
< Wn‎ | bn
Wn > bn > বাংলাদেশের শীর্ষ যুদ্ধাপরাধীর মৃত্যু
  এই নিবন্ধটি ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ অনুযায়ী নিরীক্ষণ বা পর্যালোচনা করা হয়নি। এখানে প্রদর্শিত তথ্যগুলোর পুনঃমূল্যায়ন করুন। (আরও জানুনশোধন)

শনিবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৪

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বিরোধীতাকারী জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর ও যুদ্ধাপরাধের অভিযুগে সাজপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী গোলাম আযম ২৩শে অক্টোবর মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। মৃত্যুর পূর্বে তিনি যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতের দেওয়া ৯০ বছরের কারাদন্ড ভোগ করছিলেন। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৫ই জুলাই যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় আদালত তাকে ৯গ বছরের কারাদন্ড প্রদাণ করেছিলেন।

২৩শে অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে তার শারীরীক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় সেখানেই তিনি রাত পৌনে বারোটায় মৃত্যু বরণ করেন। গোলাম আযম ৭ নভেম্বর, ১৯২২ (বাংলা ১৩২৯ সালের ৫ই অগ্রহায়ন) সালে ঢাকায় (লক্ষ্মীবাজারস্থ শাহ সাহেব বাড়িতে তাঁর মাতুলালয়ে) জন্মগ্রহন করেন। তার পিতার নাম গোলাম কবির ও মায়ের নাম সৈয়দা আশরাফুন্নিসা। তিনি তার গ্রাম বিরগাও-এর (কুমিল্লা) একটি মাদ্রাসা থেকে প্রাথমিক শিক্ষা ও ঢাকা থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্র বিজ্ঞানের উপর বিএ ও ১৯৫০ সালে এমএ ডিগ্রী অর্জন করেন।

উৎস[edit | edit source]

  • বিডিনিউজ২৪.কম। "যুদ্ধাপরাধীদের ‘গুরু’ গোলাম আযমের মৃত্যু" — বিডিনিউজ২৪.কম, অক্টোবর ২৫, ২০১৪
  • দৈনিক প্রথম আলো। "মানবতাবিরোধী অপরাধী গোলাম আযমের মৃত্যু" — দৈনিক প্রথম আলো, অক্টোবর ২৫, ২০১৪


শেয়ার করুন!

ইমেইল করুন এই খবরকে

ফেসবুকে শেয়ার করুন

টেলিগ্রামে শেয়ার করুন

লিঙ্কডইনে শেয়ার করুন

টুইটারে শেয়ার করুন

শেয়ার করুন!

ইমেইল করুন এই খবরকে

ফেসবুকে শেয়ার করুন

টেলিগ্রামে শেয়ার করুন

লিঙ্কডইনে শেয়ার করুন

টুইটারে শেয়ার করুন